মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পাচ্ছেন ভোলার হতদরিদ্ররা

1 min read

Jagonews24

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উপহার হিসেবে দেয়া বাড়ি পাচ্ছেন ভোলার দৌলতখান উপজেলার ভূমিহীন, গৃহহীন, প্রতিবন্ধী, বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্তা ও অতি বৃদ্ধারা। প্রতিটি সেমি পাকা বাড়িতে রয়েছে দুটি কক্ষ, একটি রান্নাবাড়ি ও একটি বাথরুম।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, ভোলার দৌলতখান উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে ওই উপজেলার সরকারি খাস জমিতে চর পাতা, উত্তর জয়নগর ও চর খলিফা ইউনিয়নে তৈরি করা হচ্ছে বাড়িগুলো। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে বাড়ি হস্তান্তর করার জন্য ১৩০ জনের মতো শ্রমিক কাজ করছেন।

চরপাতা ইউনিয়নের স্থানীয় বাসিন্দা মো. ইকবাল হোসেন বলেন, আমাদের এলাকার অসহায় এই মানুষগুলো দীর্ঘদিন ধরে কষ্টে জীবন কাটিয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রী তাদের জন্য বাড়ি উপহার দিচ্ছেন। আর বাড়ি পাওয়ার ফলে তাদের মাথা গোঁজার ঠাঁই নিশ্চিত হবে। এ জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীকে অনেক ধন্যবাদ জানাই।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, আমাদের এখানে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের বাড়িগুলো উন্নতমানের সামগ্রী দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে। যা প্রশংসা করার মতো।

স্থানীয় বাসিন্দা মো. এনামুল হক বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাবার মতো প্রতিনিয়ত সব মানুষের কথা চিন্তা করেন তার আরও একটি প্রমাণ এটি। প্রধানমন্ত্রীর এ উপহার পেলে দীর্ঘদিনের কষ্টের জীবন শেষ হবে ওইসব মানুষের।

jagonews24

নির্মাণ শ্রমিকরা জানান, তারা দৌলতখান উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে এ ৪২টি বাড়ি নির্মাণ কাজে ১৩০ জন শ্রমিক কাজ করছেন। দ্রুত গতিতে কাজ চলছে। তারা আশা করছেন, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে কাজ শেষ হবে।

তারা আরও জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রতিদিনই ৪/৫ বার তাদের কাজ পরিদর্শন করতে আসেন। তার নির্দেশে উন্নতমানের সামগ্রী দিয়ে বাড়ি নির্মাণ করা হচ্ছে।

দৌলতখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাওছার হোসেন বলেন, বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উলক্ষে প্রধানমন্ত্রী সারাদেশের মতো দৌলতখান উপজেলায়ও ৪২টি বাড়ি অসহায়, দরিদ্র, ভূমিহীন, গৃহহীন, প্রতিবন্ধী, বিধবা, স্বামী পরিত্যাক্তা ও অতি বৃদ্ধাদের উপহার দেবেন। এ বাড়ি নির্মাণের জন্য গত ২৪ ডিসেম্বর কাজ শুরু করা হয়। এর মধ্যে চর পাতা ইউনিয়নের ৪০টি, উত্তর জয়নগর ইউনিয়নে একটি ও চর খলিফা ইউনিয়নের একটি বাড়ি রয়েছে। প্রতিটি বাড়িতে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা বরাদ্দ রয়েছে।

jagonews24

তিনি আরও বলেন, আমরা উন্নতমানে সামগ্রী ব্যবহার করেছি। উপহার ভোগীরা কোনো প্রকার সমস্যা ছাড়াই র্দীঘ বছর ধরে বসবাস করতে পারেন এ ঘরে। আগামী ২০ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী গৃহ হস্তান্তর কার্যক্রমের উদ্ধোধন করবেন।

উল্লেখ্য, মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভোলার সাত উপজেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের প্রধানমন্ত্রীর উপহার বাড়ি দেয়া হবে ৫২০টি। এদের মধ্যে সদর উপজেলায় ১৮২টি, দৌলতখান উপজেলায় ৪২টি, বোরহানউদ্দিন উপজেলায় ২৮টি, লালমোহন উপজেলায় ২০টি, তজুমদ্দিন উপজেলায় ১৮টি, চরফ্যাশন উপজেলায় ৩০টি ও মনপুরা উপজেলায় ২০০টি।

জুয়েল সাহা বিকাশ/এমআরআর/এমকেএইচ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Copyright © All rights reserved. | liitheme by LIILab.