মা-মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

Jagonews24

মানিকগঞ্জে জুসের সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য পান করিয়ে মা-মেয়েকে ধর্ষণের দায়ে আওলাদ হোসেন (৪২) নামে এক যুবকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের আদেশ দেয়া হয়।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) মানিকগঞ্জের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোহাম্মদ আলী হোসাইন এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আদালতে আসামি অনুপস্থিত ছিলেন। দণ্ডপ্রাপ্ত আওলাদ হোসেন জেলার শিবালয় উপজেলার উত্তর খানপুর গ্রামের আকালী মিয়ার ছেলে।

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের সরকারি কৌঁসুলি এ কে এম নূরুল হুদা রুবেল জানান, ২০১১ সালের ২৭ জুন রাতে উত্তর খানপুর গ্রামের এক দিন মজুরের স্ত্রী ও মেয়েকে কৌশলে জুস পান করায় আসামি আওলাদ হোসেন। আসামির দেয়া জুস পান করার পর মা-মেয়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। এরপর মা-মেয়েকে ধর্ষণের পর ঘরে থাকা দেড় ভরি স্বর্ণ ও নগদ ১০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায় আওলাদ।

পরদিন সকালে বিবস্ত্র অবস্থায় মা-মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় জ্ঞান ফেরার পর স্বামীর কাছে পুরো ঘটনা বর্ণনা করেন তার স্ত্রী। পরে আওলাদ হোসেন এবং তার দুই সহযোগী আয়নাল ও আমজাদ হোসেনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন ওই দিনমজুর।

মামলায় ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামি আয়নাল ও আমজাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের বেকসুর খালাস এবং আওলাদ হোসেনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে আরও পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন বিচারক।

বি এম খোরশেদ/এএইচ/এমএস

Leave a Reply

Your email address will not be published.