ভর্তুকির সুদ গ্রাহকের ওপর না চাপানোর নির্দেশ কেন্দ্রীয় ব্যাংকের

Bonikbarta

মহামারী সৃষ্ট ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে উদ্যোক্তাদের জন্য ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজের ঋণের অর্ধেক সুদ ভর্তুকি দেবে সরকার। যদিও কিছু ব্যাংক ভর্তুকির সুদ গ্রাহকের ওপর চাপিয়ে দিচ্ছে। সময় বেঁধে দিচ্ছে সুদসহ পুরো টাকা পরিশোধের। অবস্থায় ভর্তুকি সুদকে আলাদা হিসাবে সংরক্ষণের নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। মঙ্গলবার জারীকৃত এক প্রজ্ঞাপনে নির্দেশনা দেয়া হয়।

করোনাভাইরাসের কারণে ভর্তুকি সুদে বিভিন্ন ঋণ প্যাকেজ ঘোষণা করে সরকার। এর মধ্যে সবচেয়ে বড় প্যাকেজ হলো ক্ষতিগ্রস্ত শিল্প সেবা খাতের জন্য। ইতোমধ্যে প্যাকেজের ঋণসীমা ৩০ হাজার থেকে বাড়িয়ে ৪০ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত করা হয়েছে। শতাংশ সুদে বিতরণকৃত প্রণোদনা প্যাকেজের ঋণে সরকার ভর্তুকি দেবে সাড়ে শতাংশ। গ্রাহকদের সাড়ে শতাংশ সুদ পরিশোধ করার কথা।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, কিছু ব্যাংক আলোচ্য প্যাকেজের আওতায় দেয়া ঋণের বিপরীতে নির্ধারিত সুদ গ্রাহকের ঋণের বিপরীতে আরোপ করছে। ফলে গ্রাহক আর্থিকভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। ব্যাংক পর্যায়ে একই হিসাবায়ন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে এবং অতিরিক্ত সুদ আরোপের ফলে গ্রাহক যাতে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সেজন্য সুদ আরোপের ক্ষেত্রে নতুন নির্দেশনা মানতে হবে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ঋণের ওপর আরোপযোগ্য নির্ধারিত সুদের মধ্যে গ্রাহক কর্তৃক প্রদেয় অংশ গ্রাহকের ঋণ হিসাবের বিপরীতে আরোপ করা যাবে এবং অবশিষ্ট অংশ পৃথক হিসাবে সংরক্ষণ করতে হবে। তবে ঋণগ্রহীতা কর্তৃক প্রদেয় সুদ যথাসময়ে পরিশোধিত না হলে ব্যাংক সমুদয় সুদ গ্রাহকের ঋণ হিসাবের বিপরীতে আরোপ করতে পারবে এবং তা গ্রাহকের দায় হিসেবে বিবেচিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.