বিন্দুবাসিনী বিদ্যালয়ে ভর্তি লটারিতে এক ছাত্রের নাম একাধিকবার

Jagonews24

টাঙ্গাইলের বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তির লটারিতে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। লটারির মাধ্যমে ভর্তির সুযোগ পাওয়া নামের তালিকায় এক ছাত্রের নাম একাধিকবার রয়েছে। ফলাফল তালিকায় এ রকম একাধিকবার নাম রয়েছে কয়েকজনের। এ অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করেছেন বঞ্চিত ছাত্রের অভিভাবকরা।

মঙ্গলবার (১২ জানুয়ারি) বিকেলে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। অনলাইনের মাধ্যমে কেন্দ্রীয়ভাবে ভর্তির লটারি না করে জেলায় কিংবা বিদ্যালয়ে লটারির ব্যবস্থা করার দাবি জানান তারা। অন্যথায় আদালতের আশ্রয় নেয়া হবে বলেও তারা জানিয়েছেন।

সম্মেলনে জানানো হয়, বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে ভর্তির জন্য সোমবার (১১ জানুয়ারি) কেন্দ্রীয়ভাবে লটারি অনুষ্ঠিত হয়। সেই লটারির ফলাফলের বিজয়ী তালিকায় একাধিক ছাত্রের নাম কয়েকবার রয়েছে। ফলাফল তালিকায় দেখা যায়, নাহিয়ান হক স্বাধীন পাঁচবার, আব্দুল্লাহ আল নোমান, সাইদুর রহমান সোহান, আতিকুর রহমান নাবিল, সামিউল ইসলাম, মাজহারুল ইসলামের নাম দুইবার করে রয়েছে।

একজন ছাত্রের নাম একবারই আসার কথা। একাধিক ছাত্রের কয়েকবার করে নাম থাকায় অনেক শিক্ষার্থী বঞ্চিত হয়েছে। এই লটারির ফলাফল বাতিল করে পুনরায় স্বচ্ছতার সঙ্গে লটারি করার জন্য দাবি জানান অভিভাবকরা। তারা বলেছেন, বিষয়টির সঠিক সমাধান না হলে তারা আদালতের আশ্রয় নেবেন।

সম্মেলনে অভিভাবকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন তামান্না ইসলাম, সাইফুল ইসলাম, জরিনা বেগম, আলী আশরাফ হিটলু প্রমুখ।

এ প্রসঙ্গে বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল করিম বলেন, সফওয়্যার ত্রুটিজনিত কারণে এমন সমস্যা হয়েছে। তবে ভর্তির ক্ষেত্রে এক ছাত্রকে একবারই ভর্তি করা হবে। অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে একাধিকবার আসা নামগুলোর স্থান পূরণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

আরিফ উর রহমান টগর/এসআর/জিকেএস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *